কুয়েতের আকাশ থেকে রহস্যময় টাকার বৃষ্টি

356

ধনীদের স্বর্গ বলে খ্যাত দেশ কুয়েত। তেলের খনি আবিস্কার হওয়ার পর থেকে দেশটিতে যেন টাকার ফোয়ারা বইছে। এই দেশে বাস করা বেশিরভাগ মানুষ এতটাই ধনী যে, অনেকেই জানে না তাদের মোট কত টাকা আছে! তাই কুয়েতের রাস্তা ঘাটে টাকা পড়ে থাকতে দেখলে অবাক হওয়ার কিছু নেই! কিন্তু তাই বলে আকাশ থেকে টাকার বৃষ্টি! এ কি করে সম্ভব?

অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি ২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে এমন অদ্ভুত ও রহস্যজনক একটা ঘটনা ঘটেছিল কুয়েতের রাজধানী কুয়েত সিটিতে। আকাশ থেকে কয়েক মিনিট যাবত টাকা বৃষ্টি হয়েছিল সেদিন। কিন্তু এত টাকা কি করে উড়ে এল, সে ঘটনার কোন ব্যাক্ষা পাওয়া যায়নি। আজ থ্রিলার মাস্টার চ্যানেলের পক্ষ আপনাদের জন্য রয়েছে সেদিনের সেই রহস্যময় ঘটনার উপর দারুণ এক প্রতিবেদন।

টাকার বৃষ্টি যেভাবে হলোঃ

২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারির ২১ তারিখ। দুপুরের পর এক পশলা বৃষ্টি হয়ে গেল কুয়েত সিটিতে। বিকেল বেলার শান্ত সৌম্য এক পরিবেশ। কুয়েতের বার্জ জেসিম শপিং মল এর সামনের ব্যস্ত রাস্তায় প্রচুর ট্রাফিক। হঠাৎ মানুষকে অবাক করে দিয়ে আকাশ থেকে শুরু হল টাকার বৃষ্টি। হাজার হাজার টাকা উড়ে এসে পড়ছে গার্জ জেসিম শপিং মলের সামনের রাস্তায়। পথচারিরা শুরুতে অবাক হয়ে গেলেও, পরে হুশ ফিরতেই তারা ব্যস্ত হয়ে রাস্তা থেকে টাকা কুঁড়াতে শুরু করল। রাস্তার মাঝখানে গাড়ি থামিয়ে মানুষ নেমে পড়ল রাস্তায়। সবাই যত বেশি সম্ভব টাকা কুড়িয়ে নিতে শুরু করল। বেশ কয়েক মিনিট যাবত এভাবে টাকার বৃষ্টি হল রাস্তায়।

এই দিন কয়েক মিনিটে প্রায় বিশ থেকে ত্রিশ লাখ আরব আমিরাতের দিরহাম ঝড়ে পড়ে রাস্তায়। ডলারের অংকে হিসেব করলে দাঁড়ায় প্রায় ৮ লক্ষ মার্কিন ডলার। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন ঘটনা স্থলে অনেকক্ষণ যাবত এই টাকার বৃষ্টি হয়। কীভাবে এল এই টাকা, কোথ থেকে এল, কাদের টাকা এই গুলো- তার কিছুই বুঝতে পারেনি কেউ। সবাই ব্যস্ত ছিল টাকা কুড়ানোর কাজে। কুয়েত সিটির রাস্তায় এক অদ্ভুত, অস্বাভাবিক ও অভিনব দৃশ্যের অবতারণা হয়েছিল!

এই ঘটনা নিয়ে প্রথমে একটু মত বিরোধ সৃষ্টি হয়েছিল। অনেকেই বলেছিল ঘটনাটি ঘটেছে দুবাইয়ে। কারণ রাস্তায় দুবাই এর দিরহাম পড়ে ছিল। কিন্তু ভিডিওতে দেখা গেল মানুষ টাকা কুড়াচ্ছে কুয়েত সিটির রাস্তায়। তখন নিশ্চিত হওয়া গেল যে ঘটনাটি ঘটেছে কুয়েতে। কিন্তু এত টাকা কীভাবে উড়ে এল, টাকার উৎস কি – এর ব্যাক্ষা কেউ দিতে পারেনি। শুরুতে অনেকে ভেবেছিল কোন বহুতল বিশিষ্ট ব্যাংক এর খোলা জানালা দিয়ে উড়ে এসেছে এই টাকা। কিন্তু ঘটনার পর দেখা গেল কোন ব্যাংক এই টাকা দাবি করল না। এমনকি কোন ধনী ব্যক্তিও এগিয়ে এসে এই টাকার দাবি করেনি। তাই এত টাকার উৎস কি – তা কারো পক্ষেই নিরুপন করা সম্ভব হয়নি। তাই কুয়েতের ইতিহাসে এই ঘটনা এক হতবাক করা রহস্য হয়েই থাকবে সব সময়।

অবশ্য কিছু মানুষ এই ঘটনা ব্যাক্ষা খোঁজার চেষ্টা করেছেন। তাদের ধারণা কোন এক দয়ালু ধনী ব্যাক্তি মানুষকে দান করার উদ্দেশ্যে এই টাকা নিয়ে প্লেনে ওঠেন। তারপর সেই প্লেন থেকে টাকার ব্যাগ উপুর করে দিয়ে সমস্ত টাকা আকাশে উড়িয়ে দেন। সেই টাকা বাতাসে ভাসতে ভাসতে কুয়েত সিটির বার্জ জেসিম শপিং মল এর সামনের রাস্তায় এসে পড়েছে। অনেকেই আবার এই মত মেনে নিতে নারাজ। কেউ যদি অত উপর থেকে বাতাসে টাকা ভাসিয়ে দেয়, তাহলে তা চারিদিকে ছড়িয়ে পড়বে। সেই টাকা আপনার বা আমার এলাকায় না এসে শুধুমাত্র কুয়েত সিটিতেই কেন পড়ল? এ সত্যিই এক আজব রহস্য যার কোন ব্যক্ষা খুঁজে পাওয়া মুশকিল!

তথ্য সূত্রঃ Dailymail ও Mysterious Universe

আরও পড়ুন

কাতারের রহস্যময় ফিল্ম সিটি

কুয়েতের বিখ্যাত আয়নাঘর এর উপর সচিত্র প্রতিবেদন

copyright-notice

 

মন্তব্য লিখুন
SHARE
আবির তপু পেশায় একজন প্যাটার্ন ডিজাইনার। শখের বসে লেখালেখি করেন। তিনি দেশ ও দেশের বাইরের প্রতি মুহূর্তে ঘটে যাওয়া ঘটনার সাথে আপডেট থাকতে ভালবাসেন। থ্রিলার মাস্টার ওয়েব পোর্টালের সাথ জড়িত আছেন ২০১৭ সাল থেকে। পৃথিবীর ইতিহাস থেকে তুলে আনছেন বিচিত্র সব বিষয় । উপস্থাপন করছেন থ্রিলার প্রেমি পাঠকদের কাছে।