যে গ্রামে পুরুষের প্রবেশ নিষেধ | কেনিয়ার উমজা গ্রাম

269
যে গ্রামে পুরুষের প্রবেশ নিষেধ কেনিয়ার উমজা গ্রাম
যে গ্রামে পুরুষের প্রবেশ নিষেধ – কেনিয়ার উমজা গ্রাম

সাম্বুরু গানের তালে নাচছে একদল নারী। ছন্দে ছন্দে দুলছে রঙিন গয়না। যেন পৃথিবীর সবচেয়ে সুখি মানুষ তারা। নারীদের এই নাচ দেখে হয়তো আপনার মনে হতে পারে- পুরুষেরা আশে পাশেই কোথাও দাঁড়িয়ে নাচ দেখছে। কিন্তু আসলে তা নয়। আশে পাশে দূর, এই গ্রামের ভেতরে কোথাও কোনো পুরুষ নেই! উত্তর কেনিয়ার উমজা গ্রাম এটি – যে গ্রামে পুরুষের প্রবেশ নিষেধ।

কেনিয়ার উমজা গ্রাম

গ্রামটিকে বলা হয় নো ম্যানস ল্যান্ড। বসবাস করা তো দূরে থাক, কোনো পুরুষের প্রবেশও নিষিদ্ধ এখানে। নারীরাই এখানকার শাসক। সবকিছু  নির্ধারন করেন তারাই। প্রায় অর্ধশত নারী তাদের সন্তানদের নিয়ে বসবাস করেন উমোজায়। তাদের আয়ের প্রধান উৎস ঐতিহ্যবাহী অলংকার তৈরি। গয়না বিক্রির অর্থ এসে জমা হয় গ্রামের শাসনকর্ত্রির কাছে। সন্তানদের সংখ্যার অনুপাতের বিবেচনায় তিনি তা ভাগ করে দেন নারীদের মাঝে। কিছু অর্থ জমা রাখা হয় গ্রামের তরুণীদের শিক্ষার জন্য।

গ্রামে ঘুরলে দেখবেন প্রায় সব নারীই হাস্যোজ্জল মুখে তাকিয়ে আছে আপনার দিকে। কিন্তু সেই হাসি দেখে ভাববেন না এটাই সব। আসলে উমোজা গ্রামের নারীদের হাসির পেছনে লুকিয়ে আছে করুন বিষাদ। কি সেই বিষাদের কারন তা জানতে হলে আমাদের ফিরে যেতে হবে গ্রামটির উত্থানের ইতিহাসের পাতায়।

কেনো উমজা গ্রাম পুরুষের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হলো?

গত শতাব্দির শেষের দিকে ব্রিটিশ সৈনিকরা এই গ্রামে উপনিবেশ করে। তারা এই গ্রামের অনেক নারীকে ধরে নিয়ে গিয়ে ধর্ষন করে। ব্রিটিশরা চলে যাওয়ার পর এই নারীরা ফিরে আসেন তাদের পরিবারের কাছে। কিন্তু অসম্মান বয়ে আনার অভিযোগে তাদেরকে পরিবারের লোকেরা ঘর থেকে বের করে দেয়।

ঘর হারানো সেই নারীরা গ্রামের এক প্রান্তে গিয়ে বসবাস করতে শুরু করেন। ১৯৯৫ সালে তারাই মিলে গড়ে তোলেন উমোজা গ্রাম। তারপর কেনিয়ার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ধর্ষিত, নির্যাতিত নারীরা আসতে শুরু করে এখানে। গড়ে তোলে নারীদের অভয়আশ্রম। এখানে নারীরা পরস্পরের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াই করে চলেছে, নিজেদের ভবিষ্যৎ গড়ছে নিজের হাতে।

কেনিয়ার উমজা গ্রামের ভিডিও প্রতিবেদনটি দেখুন আমাদের থ্রিলার মাস্টার ইউটিউব চ্যানেলে। 

কিছু পুরুষের লালসার কারনেই আজ তাদের এই হাল। তাই তো পুরুষ জাতির ওপর থেকে তাদের বিশ্বাস উঠে গেছে। এই কারনেই উমোজা গ্রামে কোনো পুরুষকে প্রবেশ করতে দেওয়া হয় না। কিন্তু পুরুষ শাসিত এই সমানে নারীরা কতদিন এভাবে একা একা থাকতে পারবে? সময়ই হয়তো তা বলে দেবে।

আরও পড়ুন:

পৃথিবীর যে পাঁচটি অঞ্চলে এখনও জংলি উপজাতির বসবাস

যমজের গ্রাম – যেখানে ঘরে ঘরে জন্ম নেয় যমজ বাচ্চা

হায়দ্রাবাদের ভুতুড়ে স্থান – রামোজি ফিল্মসিটি

মন্তব্য লিখুন
SHARE
আবির তপু পেশায় একজন প্যাটার্ন ডিজাইনার। শখের বসে লেখালেখি করেন। তিনি দেশ ও দেশের বাইরের প্রতি মুহূর্তে ঘটে যাওয়া ঘটনার সাথে আপডেট থাকতে ভালবাসেন। থ্রিলার মাস্টার ওয়েব পোর্টালের সাথ জড়িত আছেন ২০১৭ সাল থেকে। পৃথিবীর ইতিহাস থেকে তুলে আনছেন বিচিত্র সব বিষয় । উপস্থাপন করছেন থ্রিলার প্রেমি পাঠকদের কাছে।